loading...

সারে ১৫ বছরে সম্নেলন নেই  গৌরীপুর উপজেলা অাওয়ামী লীগের

0

অানোয়ার  হোসেন শাহীন, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা অাওয়ামী লীগের  কমিটির  মেয়াদ   ১৫ বৎসর ৫ মাস  অতিবাহিত হলেও অাজ পর্যন্ত  কোন সন্মেলনের  উদ্যোগ নেয়া হয়নি।এর মধ্য  ১৪ নেতার মৃত্যু হয়েছে।ভারপ্রাপ্ত সভাপতি দিয়ে  চলছে দলীয় কর্মকান্ড। শুণ্য  পদে কোয়াপসনে পূরন করা হয়েছে।

জানা গেছে,বিগত ২০০৩ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর  গৌরীপুর উপজেলা অাওয়ামীলীগের  ত্রিবার্ষিক  সন্মেলন  ডা,ক্যাপ্টেন ( অব) মজিবুর ররহমান ফকির সভাপতি ও বিধূভূষন দাস সাধারন  সম্পাদক নিবার্চিত হন।  ৬৭ সদস্য  বিশিষ্ট কমিটির  মধ্যে  সভাপতি, সহ সভাপতি ২ জন সম্পাদক ৪ জন জন ও   ৭ জন সদস্য সহ  মোট ১৪ জন নেতা  ইন্তেকাল করেন।   যারা ইন্তেকাল করেন তারা হলেন   উপজেলা অাওয়ামীলীগের সভাপতি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. ক্যাপ্টেন (অব) মুজিবুর রহমান ফকির এমপি, সহ সভাপতি অাজিজুল  হক ( বাবু চেয়ার ম্যান),  কমান্ডার রফিকুল  ইসলাম,  সাংগঠনিক সম্পাদক  মোঃ অাবদুল কাদির,  মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম,সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক  মোঃ অাঃ ছালাম,  কোষাদক্ষ বাবু শংকর হোম,সদস্য  অাওয়ামীলীগ নেতা অাব্দুস সামাদ অাজাদ, শিল্পপতি এম এ হান্নান, এডভোকেট অাঃ গনি,এডভোকেট রিয়াজুল ইসলাম ও  মোঃ অাবুল কালাম, সফির উদ্দিন,অাবু সাঈদ মাস্টার।

গৌরীপুর উপজেলা অাওয়ামীলীগের সভাপতি  সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. ক্যাপ্টেন( অব) মজিবুর রহমান ফকির ২০১৬ সালে মৃত্যুর  পর   সিনিয়র সহ সভাপতি ড. হেলাল উদ্দিন  বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির  হিসাবে দায়ি ত্ব পালন করছেন।সহ সভাপতি  কমান্ডার রফিকুল ইসলাম  মৃত্যু হলে  এই পদে  তার ভাতিজা সাবেক কমিশনার শাহজাহান মিয়াকে  কোয়াপসনে নেয়া হয়। ৩ জন যুগ্ন সম্পাদক মধ্যে  কামাল পাশা মতি দুর্ঘটনা মারাত্বক অাহতের কারণে দলে সময় দিতে পারছেন না।
সাংগঠনিক সম্পাদকের মধ্যে  মোঃ অাবদুল কাদির চেয়ারম্যান ইন্তেকালের পর এই পদে  সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি অাঃ মুন্নাফকে  কোয়াপসনে শুণ্য স্থান পুরন করা হয়। সাংগঠনিক  সম্পাদক  রমিজ উদ্দিন স্বপনকে অব্যহতি দেয়া হয়। তথ্য ও গবেষনা  সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন অাহম্মদ  ফেরদৌস  অাহম্মদ কোরাইসির পিডিপিতে  চলে গেলেগিয়েছিলেন পরে অাবার দলে চলে অাসেন।

সহ- প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে  অানোয়ার  হোসেন শাহীনকে বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে  তৃনমূলের ভোটে ভোটাধিকার স্থগিত  করা হয়েছিল। শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক  গোলাম মোহাম্মদ জি এম), পদত্যাগ  করেন। বতর্মানে  তিনি জাকের পাটির সাথে সংপৃক্ত।  শ্রম বিষয়ক সম্পাক মোঃ মুজিবুর রহমানকে দল থেকে অব্যহতি  দেয়া হয়।  আইন বিষয়ক সম্পাদক  এডভোকেট শফিকুল হক মিন্টু, ত্রান ও সমাজ কল্যান সম্পাদক  ফজলে মাসুদ চেয়ারম্যান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক  শাহ মোস্তফা হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক  মো নূরুল হক।সহ -দপ্তর সম্পাদক  এনামুল হক মাষ্টার দলীয় কর্মকান্ডে  পাওয়া যায় না।
অতিদ্রুত  সম্নেলন  হবে কিনা  এ বিষয়ে  প্রবীন  আওয়ামীলীগ নেতা  বীরমুক্তিযোদ্ধা  নাজিম উদ্দিন অাহমেদ এমপি এ প্রতিনিধিকে  জানান,কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত আসলে গৌরীপুর উপজেলা অাওয়ামীলীগের সন্মলন করবো।

উপজেলা অাওয়ামীলীগের সহ সভাপতি  অধ্যক্ষ রহুল অামিন বলেন, দীর্গ ১৫ বৎসর ধরে  কাউন্সিল হচ্ছেনা, দলের সিদ্ধান্ত  হলে অচিরেই কমিটি হবে।  
উপজেলা অাওয়ালীগের সাধারন  সম্পাদক বিধুভূষণ  দাস বলেন, অাওয়ামীলীগের দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক সম্মেলন করা হবে।

দপ্তর সম্পাদক শফিকুল  ইসলাম মিন্টুর কাছে  নেতাদের অব্যহতির বিষয়ে জানতে চাইলে, তিনি বলেন,অব্যহতির বিষয়ে একটি চিঠি রয়েছে,বিগত নিবার্চনে যারা নৌকার  বিপক্ষে কাজ করেছেন তাদেরকে অব্যহতি  দেয়া হয়।পরে তাদেরকে  অাওঢামীলীগ সভাপতি, জননেত্রী  শেখ হাসিনা ক্ষমা করে দিয়েছেন।

loading...
%d bloggers like this: