loading...

মেঘনায় ট্রলার ডুবি; নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান স্বপন

0

নিউজ ডেক্স : মুন্সীগঞ্জের চরঝাঁপটার মেঘনা নদীতে ট্রলার ডুবিতে পাবনার ভাঙ্গুড়ার ১৭জন নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার ও ত্রাণ বিতরণ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান নুর মুজাহিদ স্বপন। শনিবার সকালে তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারের খোঁজ খবর নিতে যান। এ সময় তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রত্যেক পরিবারকে শুকনো খাবার চাল,ডাল,তেল দিয়ে তাদের সহায়তা প্রদান করেন। এসময় তিনি জানান,নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারের খবর আমরা নিয়মিত রাখবো। তাদের পাশে দাঁড়াতে সব ধরনের উদ্যোগ নেয়া হবে। এদিকে নিখোঁজদের পরিবারের সদস্যরা অবিলম্বে তাদের স্বজনদের উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছেন।

 

উল্লেখ্য,গত সোমবার কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে ট্রলারে মাটি তুলে ৩৪ জন শ্রমিক নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার বক্তাবলী নিয়ে যাচ্ছিল। ট্রলারটি সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মুন্সীগঞ্জের চরঝাঁপটার মেঘনা নদীতে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি তেলবাহী জাহাজ ট্রলারে ধাক্কা দিয়ে চাঁদপুরের দিকে চলে যায়। এতে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারে থাকা শ্রমিকদের মধ্যে ১৪ জন সাঁতরে প্রাণে বাঁচাতে পারলেও ট্রলারটির কেবিনের ভেতরে ঘুমন্ত ২০ শ্রমিকের ভাগ্যে কী ঘটেছে তা এখনো জানা যায়নি। নিখোঁজ শ্রমিকদের মধ্যে ১৭ জনের বাড়ি ভাঙ্গুড়া উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের মুন্ডুমালা,মাদারবাড়িয়া,চন্ডিপুর ও দাসমরিচ এবং পাশ্ববর্তী উল্লাপাড়া উপজেলার গজাইল ও বনমালি প্রতাপ গ্রামের বাসিন্দা।


শনিবার এ রিপোর্ট লেখার সময় নৌপুলিশের সঙ্গে থাকা নিখোঁজ শ্রমিকের আতœীয় খাঁনমরিচ ইউনিয়নের মুন্ডুমালা গ্রামের মনিরুল ইসলাম জানান,উদ্ধার অভিযানে তিন কিলোমিটার ব্যাপি অভিযান চালালেও ডুবন্ত ট্রলারের কোন হদিস পাওয়া যায়নি।

loading...
%d bloggers like this: