loading...

পূর্বধলায় শোক দিবসে আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ২২

0

শিমুল শাখাওয়াতঃ

 

নেত্রকোণার পূর্বধলায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও শোক র্যালীতে আওয়ামীলীগের দু গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ২২ জন আহত হয়েছে।
আহতদের ১৪ জন পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। গুরুত্বর আহত কয়েকজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আজ দুপুরে পূর্বধলার মধ্য বাজারে আওয়ামীলীগ অফিসের সামনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি স্থানীয় সাংসদ ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল  আলোচনা সভার আয়োজন করে । অপরদিকে এর দেড়শ’ গজ সামনে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন এর গ্রুপের লোকজনও শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করে। উভয় পক্ষের আলোচনা চলাকালে একে অপরকে উদ্দেশ্য করে আপত্তিকর বক্তব্য দেয়ায় নেতা-কর্মীরা এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটায়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে উপজেলার মধ্য বাজারে স্থানীয় সাংসদ গ্রুপ ও কেন্দ্রীয় নেতার গ্রুপ পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মসূচীর আয়োজন করে। এ সময় উভয় গ্রুপের নেতা-কর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র সহ সংঘর্ষে লিপ্ত হলে পুলিশ সংর্ঘষ এড়াতে টিআরশেল নিক্ষেপ করে।
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৮ রাউন্ড টিয়ারশেল ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। হামলায় বেশ কয়েকটি দোকানসহ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন সমর্থকদের সভামঞ্চ সহ একটি মোটর সাইকেল ভাংচুর করে দুর্বৃত্তরা।
সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। সংর্ঘষ চলাকালে পূর্বধলা বাজার ও এর আশ পাশের এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতেয়ন করা হয়েছে।
পূর্বধলা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মাদ ফখরুজ্জামান জুয়েল জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে,সংর্ঘষ চলাকালে বেশ কয়েক রাউন্ড টিআরশেল নিক্ষেপ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

loading...