loading...

হাইআতুল উলইয়ার পরীক্ষায় প্রথমস্থান অর্জনকারী কুমিল্লার নাদিম

0

হিফজুর রহমান জাহাঙ্গীরঃ

আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতুল কওমিয়া বাংলাদেশের অধীনে অনুষ্ঠিত দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়েছে গত ৫ জুলাই বৃহস্পতিবার। এতে সারাদেশের ১৪৭৪৭ জন ছাত্রের মাঝে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেছেন কুমিল্লায় জন্ম নেয়া, চাঁদপুরের মতলবে বেড়ে উঠা জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলূম ফরিদাবাদ মাদ্রাসার মেধাবী ছাত্র খলিল আহমদ নাদিম। ফুটফুটে হাসিমাখা, আলোকিত এ মানুষটির জীবন খুবই বর্ণাঢ্য। বর্তমানে তিনি ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দে অধ্যয়ন রত আছেন। তার জন্ম কুমিল্লায় হলেও বেড়ে উঠা হয়েছে চাঁদপুরে।

চাঁদপুরের মতলবে বাবার কর্মস্থল হওয়ায় সেখানেই বাবার কাছে প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন করেছেন। স্কুলে পড়েছেন পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত। আর হেফজ শেষ করেছেন ২০১০ সালে। সে বছরেই রমজানে বাবার কাছে তাইসীরুল মুবতাদী কিতাবটি পড়ে সাইনবোর্ড জামিয়া আশরাফিয়ায় মিযান জামায়াতে ভর্তি হন। সেখানে শরহেবেকায়া পর্যন্ত পড়েন। এরপর ফরিদাবাদ মাদরাসায় জালালাইনে ভর্তি হন। তিনি পঞ্চম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিলেন।  তারপর নাহবেমীরে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় মেধা তালিকায় চতুর্থ স্থান ও শরহেবেকায়া জামায়াতে মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থান লাভ করেন।

এরপর ফরিদাবাদ এসে মিশকাতে সারাদেশে প্রথম স্থান অর্জন করেন। আর এবার হাইয়ার পরীক্ষায় আল্লাহর রহমতে, আল্লাহ তায়ালা পেছনের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার তৌফিক দিয়েছেন। তিনি বলেন, আসলে সবার বড় হওয়ার পেছনে সবচে বড় অবদান থাকে বাবা-মায়ের। তাছাড়া আমার বাবাও একজন আলেম। নানুপুরের পীর সাহেব মাওলানা জমীরুদ্দীন রহ. এর খলীফা। আর চাঁদপুর জেলার মতলব থানার বড় মসজিদের খতীব ও সেখানে মেশকাত পর্যন্ত একটি মাদরাসার মুহতামীম। তিনি আমার পেছনে অনেক মেহনত করেছেন। তারপর আমি বলবো আমার পেছনে আমার উস্তাদগণের অবদান ছিলো সবচে বেশি। তার ইচ্ছা তিনি বিখ্যাত ফিকহবিদ ও মুহাদ্দিস হবেন। ইলমুল ফিকহ ও ইলমুল হাদীস নিয়ে গবেষণা করতে চান।

loading...