loading...

শ্যামনগরের মিয়ারাজের আকুতি আমাকে বাঁচান

0
শেখ আমিনুর হোসেন, সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফঃ
সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের সোনারমোড় সংলগ্ন মাহমুদপুর গ্রামে বসবাস করেন মিয়ারাজ হোসেন (২৫)। তার পিতার নাম-আব্দুর রশীদ গাজী (৭৮) ও মাতার নাম ছবুরা খাতুন। সে বৃদ্ধ পিতা মাতার একমাত্র পুত্র। বিগত ২০১৫ সালে  দুর্বৃৃত্তদের ছুরিকাঘাতে ঞ্জান হারিয়ে ফেলে মিয়ারাজ হোসেন। হাসপাতালে চিকিৎসার পরে ঞ্জান ফিরলেও শরীরের সমস্ত অংশ শক্তিহীন (অবস) হয়ে যায় তার । সেসময় বৃদ্ধ পিতা মাতা মিয়ারাজকে সুস্থ্য করতে চিকিৎসার খরচ যোগাতে বসতভিটা ছাড়া সমস্ত জমি বিক্রয় করে দেন। পরবর্তীতে একটি জরুরী অপারেশন করানোর কথা থাকলেও অর্থের অভাবে সেটি আর করানো সম্ভব হয়নি দ্বারিদ্র পরিবারের। এভাবে কেটে যায় দীর্ঘ ৩ টি বছর।
কিন্তুু বর্তমানে মিয়ারাজ ও তার পরিবারের অবস্থা আরো করুন। সুঠাম দেহের অধিকারী মিয়ারাজ চলতে ফিরতে পারেনা কিন্তু পূর্বের তুলনায় বর্তমানে শুধু কথা বলতে পারে এবং একটি হাত উচু করতে পরে। গোসল করানো টয়লেটে নিয়ে যাওয়া ভাত খাওয়ানো সবকিছু করেন ৭০ বছরের এই প্রবীন জুঠি। মিয়ারাজের পরিবার মিয়ারজের  চিকিৎসা করাতে যেয়ে দ্বারিদ্রতা এতটা চেপে বসে যে সকাল গড়িয়ে দুপুরে কি খাবে সেটুকুও খাদ্যও  ঘরে সংগ্রহ নেই। মিয়ারাজের স্ত্রী অভাবের তাড়না সহ্য করতে না পেরে ছোট পুত্রকে নিয়ে বাবার বাড়ী চলে যায়।

এদিকে মিয়ারাজের শাররীক অবস্থা কিছুটা উন্নতি দেখে তার বন্ধুরা মিয়ারাজকে ভালো ডাক্তার দেখান। ডাক্তার সব পরিক্ষা নিরিক্ষা করে মিয়ারাজকে জরুরী  অপারেশন করালে সুস্থ্য হবে বলে আস্বস্ত করেন। কিন্তুু সেই অপারেশন করার জন্য প্রয়োজন ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা। কোথায় পাবে এত টাকা মিয়ারাজের পরিবার? তাহলে অর্থের অভাবে চিকিৎসা কি হবে না মিয়ারাজের? মিয়ারাজ কি সুস্থ্য হয়ে তার বৃদ্ধ বাবা মাকে দেখতে পারবেনা?
মিয়ারাজের  বন্ধু ও  এলাকাবাসীরা মিয়ারাজ ও তার বৃদ্ধ পিতা মাতার অবস্থা বিবেচনা করে চিকিৎসার অর্থ জোগাড় করতে এলাকার সকল ফেসবুক ও সুশীল সমাজের কাছে জোর আবেদন ও অনুরোধ জানাচ্ছেন। মিয়ারাজের  চিকিৎসার জন্য যার যতটুকু সামর্থ আছে আর্থিক সহযোগীতা করে মিয়ারাজের পাশে যারা দাঁড়াতে চান   -০১৯২৮০৩২৬২৪ নং বিকাশ করার জোর অনুরোধ জানানো হচ্ছে। আপনার অর্থটি স্বচ্ছতার সহিত গৃহীত হবে এবং ফেসবুকে অর্থদাতার নাম ও সংগৃহীত অর্থের পরিমান পর্যায়ক্রমে অাপডেড জানানো হবে। আপনাদের ক্ষুদ্র অর্থগুলো একসাথে করে চিকিৎসার মাধ্যমে অসহায় অসুস্থ্য মিয়ারাজ সুস্থ্যতা ফিরে পাবে ইনশাল্লাহ। বিষয়টি সকল ফেসবুক বন্ধুদের সেয়ারের মাধ্যমে অসহায় মিয়ারাজের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানানো হচ্ছে।

loading...