loading...

প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা প্রাপ্তির ৫ দিন পর হোসেন আলীর মৃত্যু

0

গৌরীপুর ব্যুরো অফিস :
প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল হতে মঞ্জুরীকৃত চিকিৎসার জন্য এককালীন আর্থিক সাহায্য প্রাপ্ত ময়মনসিংহের গৌরীপুরের অসুস্থ আ.লীগ নেতা হোসেন আলী (৫৬) আর নেই। টাকা প্রাপ্তির ৫ দিন পর শনিবার (৭ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যু বরন করেন। পরদিন সকাল ১০ টায় গজন্দর গ্রামে জানাযার নামাজ শেষে তার লাশ পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তান রেখে যান। উল্লেখ্য হোসেন আলী এ উপজেলার ২ নং ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড আ.লীগের টানা দু’বারের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ জানান হোসেন আলী গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে মিছিলে অংশ নিয়ে হঠাৎ পড়ে গিয়ে মেরুদন্ডে মারাতœক আঘাত পেয়ে প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত হয়। এতে তার দু’হাত, দু’পা ও মেরুদন্ড অচল হয়ে পড়ে। টাকার অভাবে তার চিকিৎসা ব্যাহত হচ্ছিল। নিরুপায় হয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে গত বছর আর্থিক সাহায্য চেয়ে একটি আবেদন করেছিলেন তিনি। স্থানীয় এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ ও উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উক্ত আবেদনে জোর সুপারিশও করেছিলেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে হোসেন আলীর নামে চলতি বছরে ১৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল হতে এককালীন ৩০ হাজার টাকা আর্থিক সাহায্য বরাদ্দ করা হয়। উক্ত টাকার চেক জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে গত মাসে প্রতারনার মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়া হয়। এ নিয়ে পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনের উদ্যোগে ২ জুলাই উল্লেখিত টাকা হোসেন আলীর হাতে তুলে দেন ইউএনও ফারহানা করিম। ওইদিনই মুক্তাগাছা উপজেলার তারাটিয়া ইউনিয়নের বারকাহনিয়া গ্রামের আইন উদ্দিনের ছেলে প্রতারক রিক্্রাচালক আমিরুল ইসলাম (৩৩) কে গ্রেফতার করা হয়। হোসেন আলীর স্ত্রী মিনারা খাতুন জানান তার স্বামীর শেষ ইচ্ছে ছিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকায় রাজধানীতে চিকিৎসা করবে। কিন্তু তার শেষ ইচ্ছে পূরণ হলনা।

loading...