loading...

মোদি, জাকারবার্গ, শাহরুখ খানদের মতো সেলিব্রেটিরা কত সময় ঘুমান?

0

অনেকে আছেন যারা সময় কাটান শুটিংয়ের সেটে আবার অনেকে সামাজিক মাধ্যমে। অনেকে আবার দেশ চালাতে ব্যস্ত। কেউ কেউ আবার নিয়ন্ত্রণ করেন পুরো একটি প্রতিষ্ঠান। সাফল্যের শিখরে থাকা এই ব্যক্তিগুলো কাজকেই বেশি প্রাধান্য দেন। তারা ঘুমান খুবই কম সময়। অনেকেই জানেন না নামিদামি এই সেলিব্রেটিরা ঘুমের জন্য কতটা সময় নির্ধারণ করে রেখেছেন।

বলিউডের বাদশাহ খ্যাত শাহরুখ খানের শুটিং, ছবির প্রমোশন, পার্টি, ফিটনেস ওয়ার্ক আউট ইত্যাদি লেগেই থাকে। এসব দিক সামলে শাহরুখ ঘুমের পেছনে সময় খরচ করেন তিন থেকে চার ঘণ্টা।

ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ সারা দিন থাকেন তার কাজ নিয়েই। কাজ ছাড়া তিনি অন্য বিষয় নিয়ে নাকি তেমন একটা সময় কাটান না। জাকারবার্গ ২৪ ঘণ্টায় পাঁচ ঘণ্টা ঘুমান বলে জানা গেছে।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একজন ফিটনেস সচেতন ব্যক্তি। সঠিক সময়ে ঘুম এবং যোগব্যায়ামই এই ৬৭ বছর বয়সেও তাকে তরতাজা রেখেছে। কিন্তু তার ঘুমের সময় পরিমিত। প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টার বেশি ঘুমান না তিনি।

টুইটার প্রধান ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি। দিনের বেশিরভাগ সময় তিনি সামাজিক মাধ্যমকেই দেন। ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা তিনি টুইটার ও বিভিন্ন মিটিং নিয়েই থাকেন। তিনি তার ঘুমের জন্য বরাদ্দ করেছেন মাত্র পাঁচ ঘণ্টা।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ক্ষমতায় থাকার সময় কাজের সময় নির্ধারণ করে নিয়েছিলেন। তিনি প্রতিদিন ছয় ঘণ্টার বেশি ঘুমান না। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে আরেক প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন দিনে পাঁচ ঘণ্টার বেশি ঘুমাতেন না।

ইয়াহুর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মারিসা মেয়ার। তিনি বেশি ঘুমাতে একেবারেই পছন্দ করেন না। কাজকেই তিনি বেশি সময় দিতে পছন্দ করেন। মারিসা প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ঘুমের পেছনে সময় দেন।

সূত্র: আনন্দবাজারঅনেকে আছেন যারা সময় কাটান শুটিংয়ের সেটে আবার অনেকে সামাজিক মাধ্যমে। অনেকে আবার দেশ চালাতে ব্যস্ত। কেউ কেউ আবার নিয়ন্ত্রণ করেন পুরো একটি প্রতিষ্ঠান। সাফল্যের শিখরে থাকা এই ব্যক্তিগুলো কাজকেই বেশি প্রাধান্য দেন। তারা ঘুমান খুবই কম সময়। অনেকেই জানেন না নামিদামি এই সেলিব্রেটিরা ঘুমের জন্য কতটা সময় নির্ধারণ করে রেখেছেন।

বলিউডের বাদশাহ খ্যাত শাহরুখ খানের শুটিং, ছবির প্রমোশন, পার্টি, ফিটনেস ওয়ার্ক আউট ইত্যাদি লেগেই থাকে। এসব দিক সামলে শাহরুখ ঘুমের পেছনে সময় খরচ করেন তিন থেকে চার ঘণ্টা।

ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ সারা দিন থাকেন তার কাজ নিয়েই। কাজ ছাড়া তিনি অন্য বিষয় নিয়ে নাকি তেমন একটা সময় কাটান না। জাকারবার্গ ২৪ ঘণ্টায় পাঁচ ঘণ্টা ঘুমান বলে জানা গেছে।

ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একজন ফিটনেস সচেতন ব্যক্তি। সঠিক সময়ে ঘুম এবং যোগব্যায়ামই এই ৬৭ বছর বয়সেও তাকে তরতাজা রেখেছে। কিন্তু তার ঘুমের সময় পরিমিত। প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টার বেশি ঘুমান না তিনি।

টুইটার প্রধান ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক ডরসি। দিনের বেশিরভাগ সময় তিনি সামাজিক মাধ্যমকেই দেন। ৮ থেকে ১০ ঘণ্টা তিনি টুইটার ও বিভিন্ন মিটিং নিয়েই থাকেন। তিনি তার ঘুমের জন্য বরাদ্দ করেছেন মাত্র পাঁচ ঘণ্টা।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ক্ষমতায় থাকার সময় কাজের সময় নির্ধারণ করে নিয়েছিলেন। তিনি প্রতিদিন ছয় ঘণ্টার বেশি ঘুমান না। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে আরেক প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন দিনে পাঁচ ঘণ্টার বেশি ঘুমাতেন না।

ইয়াহুর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মারিসা মেয়ার। তিনি বেশি ঘুমাতে একেবারেই পছন্দ করেন না। কাজকেই তিনি বেশি সময় দিতে পছন্দ করেন। মারিসা প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ঘুমের পেছনে সময় দেন।

সূত্র: আনন্দবাজার

loading...