loading...

দুই মাদক ব্যবসায়ীর গুলিবিদ্ধ লাশসহ অস্ত্র ও ফেন্সিডিল উদ্ধার,

0
শেখ আমিনুর হোসেন,সাতক্ষীরা ব্যুরো চীফঃ

সাতক্ষীরা সদরের বাঁকাল এলাকায় খলিলুর রহমান পুটে (৪০) ও এমদাদ কারিগর (৪৮) নামে দুই ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি তারা মাদক ব্যবসায়ী। মাদক ভাগাভাগি নিয়ে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি করে নিহত হয়েছে তারা।

সাতক্ষীরা  ভোমরা সড়কের বাঁকালের আগুনপুর গ্রামে রাস্তার পাশে  লাশ দুটি পড়ে ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। এরা হলেন সদর উপজেলার ভোমরা গ্রামের আসগর আলির ছেলে খলিলুর রহমান পুটে ও শহরের মধুমোল্লাডাঙ্গির এরফান কারিগরের ছেলে এমদাদ কারিগর।

তবে নিহত এমদাদের ভাই মফিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী তাসলিমা খাতুন জানান এমদাদকে  সাদা পোশাকধারী কয়েক ব্যক্তি গত বুধবার রাতে তারাবিহর নামাজের  পরপরই বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়।

তাকে ছাড়ানোর জন্য তারা খোঁজ খবরও নেন সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে। তবে তাদের বলা হয় গোয়েন্দা পুলিশ তাকে আটক করেনি। এ ব্যাপারে তারা থানায় জিডি করার পরামর্শ দেন।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) প্রবীর কুমার দাস জানান, সোমবার ভোরে খবর আসে যে বাঁকালের  পাশে আগুনপুরে দুটি লাশ পড়ে রয়েছে। তিনি দ্রুততার সাথে সেখানে পুলিশের কয়েক সদস্যকে নিয়ে পৌছে যান।

তিনি বলেন, লাশ দুটির প্রত্যেকের দেহে একটি করে গুলির চিহ্ন রয়েছে। তাদের পরনে ছিল  লুঙ্গি ও গেঞ্জি। মাত্র ১০ গজের ব্যবধানে পড়ে থাকা লাশ দুটির পরিচয় পাওয়া গেছে।

এরা হলেন খলিলুর রহমান ও এমদাদ। তিনি বলেন লাশের পাশেই পাওয়া গেছে একটি ওয়ান শুটার গান ও ১০৫ বোতল ফেনসিডিল। এ ছাড়া মদের খালি বোতলও পাওয়া গেছে।

উপ-পরিদর্শক আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে যে তারা মাদকের ভাগাভাগি নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। নিজেদের মধ্যে গোলাগুলির এক পর্যায়ে দুই জন নিহত হয়। ময়না তদন্তের জন্য লাশ দুটি সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

loading...