loading...

জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব : বেনাপোলে মারপিট, লুটপাট ও বাড়ি ভাংচুর

0

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি:

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বেনাপোল পোর্ট থানার গয়ড়া গ্রামে গভীর রোববার মধ্য রাতে পিটিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত ও নগদ টাকা স্বর্নালংকার লুটপাটসহ বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রিপোর্ট পাঠিয়েছেন আমাদের বেনাপোল প্রতিনিধি মোঃ রাসেল ইসলাম ।

স্থানীয়রা জানান, গয়ড়া গ্রামের আহাদ আলীর কাছে ঐ গ্রামের মাসুদ সরদার দেড় শতক জমি পাবে বলে দাবি করে আসছে। এঘটনায় দীর্ঘদিন ধরে আদালতে মামলা চলছে। জোর পূর্বক ঐ জমি রোববার রাতে দখলে নেওয়ার চেষ্টা করে।

বাধা দিলে রাতে আজিজ সরদারের নেতৃত্বে মাসুদ সরদার, শিমুল সরদার, হামিদ সরদার, কামরুলসহ ১০/১২ জনের একটি সন্ত্রাসী দল দেশিয় অস্ত্র, লাঠি, দা বোমা নিয়ে ইশারুল রেজাউল ও আব্দুল আহাদের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা ইশারুলের ঘরের দরজা ভেঙ্গে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাতœক জখম করে। ইশারুল মারা গেছে বুঝতে পেরে তারা চলে যায়। পরে তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নাভারন বুরুজবাগান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ইশরুলের স্ত্রী রহিমা খাতুন বলেন, তার স্বামীকে যখন তারা দরজা ভেঙ্গে মারতে থাকে তিনি ঠেকাতে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। এরপর সন্ত্রাসীরা রেজাউল ও আহাদের বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করে। আহাদ ও তার স্ত্রী জানায় তার বাড়িতে থাকা নগদ দুই লাখ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্নালংকার নিয়ে বাড়ি তছনছ করে ভাংচুর করে চলে যায় সন্ত্রাসীরা।

এ ব্যাপারে আজিজ সরদারকে না পেয়ে মাসুদ সরদারের সাথে কথা বললে তিনি দাম্ভিকতার সাথে জানান, গ্রামের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে তাদের মারপিট করা হয়েছে। তবে তাদের বাড়ি থেকে স্বর্নালংকার টাকা পয়সা লুটপাটের ঘটনা সে অস্বীকার করেছে।

এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই এহসানুল হক অভিযোগ দায়েরের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

loading...