loading...

তিন পুলিশ কর্মকর্তার প্রতি জনমনে অবিচল আস্থা

0

মোমিন তালুকদার / কে আই আল আমিন: 

ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি। ময়মনসিংহ জেলার এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম। এই দুজন ময়মনসিংহবাসীর প্রাণ। তাদের নির্দেশে ময়মনসিংহকে মাদক মুক্ত করতে, ময়মনসিংহকে ফেরারী ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীদের ধরে নিশ্চিত নিরাপত্তা বিধান করতে, এবং ময়মনসিংহ পুলিশের অব্যাহত গতিকে সচল রাখতে সিসি ক্যামেরাকে সার্বক্ষণিক নিয়ন্ত্রন রাখতে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার (সার্কেল) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল আমীন রাতদিন স্বশরীরে তদারকী করে যাচ্ছেন।

এদিকে গৌরীপুর সার্কেলের এডিশনাল এসপি সাখের হোসেন সিদ্দিকী নান্দাইল, গৌরীপুর এবং ঈশ্বরগঞ্জবাসী তার পরিশ্রমের সুফল ভোগ করছেন । গৌরীপুর সার্কেল তো বটেই এরপরও আশপাশ থানা গুলো এখন আগের চাইতেও আইন শৃঙ্খলা সমুন্নত। এই তিন থানার ল এন্ড অর্ডার এখন শতভাগ কার্যকর। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখের হোসেন সিদ্দিকী বিশেষজ্ঞ একজন পুলিশ কর্মকর্তা মাদককে কন্ট্রোলে এনে সমূলে ধ্বংস করবে বলে জানান তিন থানার সচেতন মহল। জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) এসএ নেওয়াজী একজন ব্যস্ত পুলিশ কর্মকর্তা তিনি খুনের সাথে জড়িতদের তাৎক্ষণিক গ্রেফতারের নির্দেশ পরবর্তী সার্বক্ষণিক মনিটরিং সহ তদারকী কাজে নিয়োজিত থাকতে যার সুফলও পাচ্ছে জেলাবাসী। সাহসী ও দক্ষ পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে কৃতিত্ববান তিনি।

অন্যদিকে ময়মনসিংহ শহরসহ হাইওয়ে পুলিশকে সিসি ক্যামেরায় আয়ত্বে নিয়ে এসে অবিরাম নিয়ন্ত্রন ও তদারকীতে সিদ্ধ হস্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল আমীন একজন মেধাবী পুলিশ কর্মকর্তা। সিসি ক্যামেরা পরিচালনা এবং নিয়ন্ত্রনে তিনি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তিন পুলিশ কর্মকর্তা স্বস্ব অবস্থানে অবিচল। ত্যাগী এবং সাহসী। পুলিশ বিভাগে এই কর্মকর্তারা মেধাবী বলেই তাদের কাজের সুনাম বয়ে এনেছে ময়মনসিংহে একের পর এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছে এর সাথে জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জল হচ্ছে। মন্তব্যঃ ময়মনসিংহবাসীর। জানাগেছে, গৌরীপুর সার্কেলের তিন থানায় মাদক ও জুয়ার সাথে তীব্রতা বাড়লে ঝড় তুফানের মতো এগিয়ে আসেন, কঠোর হস্তে দমন করেন গৌরীপুর সার্কেলের এডিশনাল এসপি সাখের হোসেন সিদ্দিকী।

যেকোন হামলা এবং ধ্বংসাত্বক কাজে বেপরোয়া আসামীদের সনাক্ত করতে তরিৎ কাজে লেগে যান সিসি ক্যামেরা বিশেষজ্ঞ মেধাবী কোতোয়ালী থানার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল আমীন শহরে কি হাইওয়েতে । জেলাতে খুনের ঘটনা ঘটলে কিংবা অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘটনা ঘটলে তাৎক্ষণিক ছুটে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) এসএ নেওয়াজী। জানাগেছে, তাদের এই নিরলস পরিশ্রম জনমনে স্বস্তি এনে দিয়েছে। অপরাধ জগতের যারা ঘৃণ্য পরিবাজক তারা এখন পালাতে শুরু করেছে। এই দৃষ্টান্ত অনন্য, অসাধারন, অসামান্য কারন ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ মাদকমুক্ত ময়মনসিংহ গড়ার প্রচেষ্ঠাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চেষ্ঠা করছে অপরাধকে নিয়ন্ত্রণে আনার এবং অচিরেই ময়মনসিংহ জেলাবাসী দেখতে পাবেন একটি অপরাধমুক্ত ময়মনসিংহ জেলা।

loading...
error: Content is protected !!