loading...

আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় অবস্থানে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে নেত্রকোনা ৩ আসনে অসীম কুমার উকিল

0

নিজেস্ব প্রতিবেদক:

নেত্রকোনা -৩ ( আটপাড়া-কেন্দুয়া) আসনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল। এমপি হিসাবে আটপাড়া কেন্দুয়া এলাকায় এবং আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় পর্যায়ে এখন সর্বাধিক জনপ্রিয়তায় যার নাম তিনি অসীম কুমার উকিল । জনদরদী এই নেতা নির্বাচনী এলাকায় দলীয় বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি, দান-অনুদান, মত বিনিময় সভা, বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ করে চলেছেন। আ’লীগের কেন্দ্রীয় অবস্থানে মনোনয়ন দৌড়ে অসীম কুমার উকিল দীর্ঘ সময় থেকে এগিয়ে রয়েছেন।

গত ২০০৬ সালে তৃণমূলের নির্বাচনে বিজয়ী অসীম কুমার উকিল বিজয়ীও হয়েছেন । এই নেতা জানান, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৩ আসনে তিনিও দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা তাঁকে মনোনয়ন দিলে কেন্দুয়া-আটপাড়ায় নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়ে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাবেন। তিনি আরো বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে সৎ এই পাঁচজন সরকার প্রধানের তালিকায় তৃতীয় স্থানে আছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমিও তাকে অনুসরন করি । তিনিই আমাদের প্রেরনার উৎস। এছাড়াও তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন না দেন, তবু আমি অতীতের ন্যায় নৌকা প্রতীকে যে মনোনয়ন পাবে তার বিজয়ের লক্ষ্যে সুন্দর বাংলাদেশ নির্মাণে আগামীর জন্য কাজ করে যাবো।

তবে দলীয় অনেক নেতাকর্মী বলছেন, এবার  অসীম কুমার উকিল দলীয় গ্রীণ সিগন্যাল পেয়েছেন বলেই এলাকায় জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে শুরু করেছেন। এমন কি প্রায় প্রতি সপ্তাহেই কেন্দুয়া-আটপাড়ায় বিভিন্ন কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করছেন। অসীম কুমার উকিলকে এবার মনোনয়ন দেওয়া হউক । এমন দাবী কেন্দুয়া – আটপাড়ার সকল নেতা কর্মীর। দলীয় অনেক নেতাকর্মী জানান, বর্নাঢ্য ছাত্রজীবন, বর্তমানে কেন্দ্রীয় কমিটির গুরুদায়িত্ব এবং সুখে-দু:খে কেন্দুয়া-আটপাড়ার সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে, জন সাধারনের মনি কোঠায় স্থান করে নিয়েছেন অসীম কুমার উকিল।

আওয়ামীলীগের জন্য নিবেদিত কেন্দুয়া-আটপাড়ার অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী জানান-ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে রাজনৈতিক বিচেনায়-দলের পরীক্ষীত, অভিজ্ঞ এবং কেন্দুয়া-আটপাড়ার আবাল-বৃদ্ধ-বনিতার প্রাণের এ নেতা, নুতন প্রজন্মের জনপ্রিয় প্রার্থী ও দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিলকে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের প্রাণে দাবি জানাচ্ছি । এছাড়াও,আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নের বিষয়ে কেন্দ্রীয় অবস্থানে থাকা ও ময়মনসিংহ প্রতিদিনকে দেয়া একান্ত সাক্ষাতকারে অসীম কুমার উকিল বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে স্বৈরশাসন ও মৌলবাদী শাসন এসেছে দেশে।

এগুলোর ভেতর দিয়ে অবক্ষয় তৈরি হয়েছে। আওয়ামী লীগের রাজনীতি আছে, বিএনপির রাজনীতি নেই। এটাই গুণগত পার্থক্য। জিয়াউর রহমান ক্ষমতার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বিভিন্ন দল থেকে লোক বাগিয়ে এনে দল তৈরি করেছেন ”ককটেল পার্টির” মতো। সেই প্রক্রিয়া বিএনপিতে এখনও অব্যাহত আছে। আজকে তাদের নতুন কমিটির যে কাঠামো দাঁড়িয়েছে, এর মূল চাবিকাঠি কিন্তু তারেক রহমান বা খালেদা জিয়ার হাতে। কিন্তু তারা তো রাজনীতির ‘প্রডাক্ট’ নন। অসৎ রাজনীতিক নেতা তারা। আর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করেছেন, আজ পর্যন্ত নেতৃত্ব দিচ্ছেন। অসীম কুমার উকিল বলেন, ক্ষমতায় আসার পরে আমরা উল্লেখযোগ্য কী কাজ করেছি।

এবার ক্ষমতায় আসার পরে মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচার আমাদের উল্লেখযোগ্য রাজনৈতিক পদক্ষেপ, অর্থনৈতিক পদক্ষেপ পদ্মা সেতু। আওয়ামী লীগের নতুন রাজনৈতিক ইস্যু যুগোপযোগী বাংলাদেশ গড়া। এ ধরনের কোনও পদক্ষেপ আজ পর্যন্ত নেওয়া হয়নি। যুগোপযোগী বাংলাদেশ করতে শুধু রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা প্রয়োজন।আওয়ামীলীগ কেন্দুয়া আটপাড়া আসনে এমপি নির্বাচিত হলে ব্যাপক উন্নয়ন করা হবে বলেও মন্তব্য করেন অমীম কুমার উকিল ।

loading...